ফরিদপুরে পদ্মা নদীতে শিক্ষকদের বহন করা ট্রলার ডুবি, দুই শিক্ষক নিখোঁজ,উদ্ধার অভিযান চলছে





প্রতিবেদক, টাইমসবাংলা.নেটঃ
ফরিদপুরে পদ্মা নদীতে ট্রলার ডুবির ঘটনা ঘটেছে। বুধবার বিকেল সাড়ে ৫ টার দিকে ফরিদপুর সিএন্ডবি ঘাট নৌ বন্দর এলাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটে। আহত ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছে ট্রলারের ইঞ্জিন বিকল হয়ে প্রথমে এক্িট কর্গোর সাথে ধাক্কা লাগে পরে পল্টুনের সাথে থাক্কা লেগে স্রোতের টানে পল্টুনের নিচে চলে গিয়ে এই হতাহতের ঘটনা ঘটে।

ওই ট্রলারে ফরিদপুর শহরের বিভিন্ন বিদ্যালয়ের ১৫জন শিক্ষক ও ট্রলারে মাঝিসহ মোট ১৬ জন ছিলেন। এর মধ্যে ১৩জন শিক্ষক ও মাঝিসহ ১৪ জনকে উদ্ধার করা সম্ভব হলেও দুই শিক্ষক পানির স্রোতে ভেসে যায়।

নিখোঁজ ওই দুই শিক্ষক হলেন ফরিদপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের সহকারি শিক্ষক আলমগীর হোসেন (৪০) ও সারদা সুন্দরী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের গণিত বিভাগের সহকারি শিক্ষক আজমল হোসেন শেখ (৪২)।

উদ্ধার হওয়া শিক্ষকদের সুত্রে জানা গেছে, শহরের বিভিন্ন বিদ্যালয়ের ১৫ জন শিক্ষক একটি ট্রলারে করে বুধবার বিকেলে নৌ ভ্রমণে বের হন। বিকেল ৪টার দিকে ট্রলারটি ফরিদপুর সদরের চর মাধবদিয়া ইউনিয়নের খলিল মন্ডললের হাট থেকে ধলার মোড়ের উদ্দেশ্যে রওনা দেয়। ট্রলারটি বিকেল ৫টার দিকে সিএন্ডবি ঘাট এলাকার মদনখালীর মাথায় থাকা পল্টুনের কাছে আসলে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

এসময় ট্রলারটির ইঞ্জিন বিকল হয়ে প্রথমে একটি কর্গোর সাথে ধাক্কা লাগে, এসময় মাঝি সম্পূর্ণ ভাবে ট্রলারের নিয়ন্ত্রন হারিয়ে ফেলে। স্রোতের টানে কর্গোার সাথে ধাক্কার পরে পল্টুনের সাথে ধাক্কা লেগে ট্রলারটি পল্টুনের নিচে চলে যায়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, এসময় তারা অনেকেই নদীর পাড়ে ছিলেন, ট্রলারটি পল্টুনের ভিতর চলে যাওয়ার পরেই তারা উদ্ধারে নেমে পড়েন। ১৪ জনকে উদ্ধার করা গেলেও স্রোতের টানে ভেসে যান ২ জন।

এ ট্রলার দুর্ঘটনায় আহত হয়ে ফরিদপুরের চর মাধবদিয়া ইউনাইটেড উচ্চ বিদ্যালয়ের ইংরেজি বিষয়ক সহকারি শিক্ষক প্রদীপ কুমার বিশ্বাস (৪২) ও সারদা সুন্দরী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ব্যবসায়ী শিক্ষা শাখার শিক্ষক বলাই কুমার দাস (৪১) ফরিদপুর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এছাড়া আরও দুই শিক্ষক প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন।

ফরিদপুর সদরের ডিক্রির চর ইউনিয়ন পরিষদের ইউপি চেযারম্যান মেহেদী হোসেন বলেন, ট্রলার দুর্ঘটনার পর দমকল বাহিনীতে খবর দেওয়া হয়। উদ্ধারে অংশ নেয় এলাকাবাসী।

ফরিদপুর দমকল বাহিনীর জ্যেষ্ট স্টেশন কর্মকর্তা সুভাষ বাড়ই বলেন, ফরিদপুর দমকল বাহিনী প্রথমে দুটি ট্রলার নিয়ে উদ্ধার অভিযান শুরু করে। পরে আরও দুটি ট্রলার বাড়ানো হয়। ঘটনাস্থলে প্রচুর স্রোত ও গভীরতা বেশি। এয়াড়াও ফরিদপুর ইউনিটে কোন ডুবরী নেই, উদ্ধর্তন কর্মকর্তাদের জানানো হয়েছে ঢাকা থেকে ডুবরী দল আসার জন্য।

ফরিদপুর সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মাকসুদুল আলম জানান, নৌ পুলিশ, ফরিদপুর ফায়ার সার্ভিস ও এলাবাসাীর সম্বনয়ে উদ্ধার অভিচান চালানো হচ্ছে। ফরিদপুরে কোন ডুবরী দল নেই , তাই ঢাকা থেকে ডুবুরী দল আসছে।#







মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

বিশেষ সংবাদ

আইন ও অপরাধ

স্বাস্থ্য

কৃষি ও খাদ্য

গনমাধ্যম

ঘোষনাঃ