ফরিদপুরে বন্যা দুর্গতদের মাঝে স্বেচ্ছাসেবীদের খাদ্য সামগ্রী বিতরণ





প্রতিবেদক, টাইমসবাংলা.নেটঃ
ফরিদপুর শহরতলীর ভাজনডাঙ্গা ও সাদিপুর এলাকায় বন্যার্তদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছে একাধীক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন। ৩ দফা বৃদ্ধি পাওয়া পানির কারনে ইতিমধ্যেই ফরিদপুরের ৭ টি উপজেলার অন্তত ৫৪০ টি গ্রাম পানি বন্দি। এসব এলাকার মানুষের অনেকে কর্মহীন, অনেকে সহায় সম্বল হারিয়ে পরিবার পরিজন নিয়ে আশ্রয় নিয়েছেন রাস্তায়। এদের মাঝে প্রতিদিনই সরকারী ও বেসরকারী বিভিন্ন সংগঠন খাদ্য সহ প্রয়োজনীয় সামগ্রী বিতরণ করছে।

এরই ধারাবাহিকতায় ভাজনডাঙ্গা এলাকার বন্যা দুর্গত ১২০ টি পরিবারের মাঝে চাল, ডাল ও শুকনো খাবার বিতরন করেছে ফরিদপুরের ‘আমরা কজন’ নামের একটি সংগঠন। এসময় অন্যান্যের মধ্যে আফফান ইবনে জুবায়ের, আমিরুল ইসলাম প্রিন্স, রাজিব কুন্ডু, তুষার আহমেদ চৌধুরী, মুকিত হায়দার মুবিন, আকবর বিশ্বাস রাজু, সাহিদুল ইসলাম, লিটু আশরাফ, বাহারুল ইসলাম ও তানভির সুমনসহ সংগঠনের অন্য সদস্যগন উপস্থিত ছিলেন।

অপরদিকে ‘আমরা সুহৃদ’ নামে আরো একটি সংগঠন ভাজনডাঙ্গা ও সাদিপুর এলাকার বন্যা দুর্গত মানুষদের মাঝে রান্না করা খাবার বিতরণ করে। বন্যায় বাড়ি ঘর তলিয়ে যাওয়ায় এসব এলাকার রাস্তা ও বাধে আশ্রয় নিয়েছে অনেক মানুষ। তাদেরকেও রান্না খাবার দেয়া হয়। এসময় অন্যান্যের মধ্যে সারদা সুন্দরী স্কুলের প্রধান শিক্ষক মনিরুল ইসলাম, ব্যবসায়ী নজরুল ইসলাম, সাবেক ইউপি সদস্য আশরাফুল হক বুলেট, সাংবাদিক শাহাদাত হোসেন তিতু এবং ‘আমরা সুহৃদ’ এর আহবায়ক রেজাউল করিম উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে বন্যা দুর্গত এলাকায় বিশুদ্ধ খাবার পানির সংকট দেখা দেয়ায়, শহরের আলিয়াবাদ ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় বিশুদ্ধ খাবার পানি বিতরন করেছে ‘যশোর বাইক’।

এছাড়াও বন্যা দুর্গতদের মাঝে খাদ্য সহায়তা দেয়া হয়েছে ‘বৃহত্তর গোয়ালচামটবাসী’ এর পক্ষ থেকে। বৃহস্পতিবার সকালে শহরতলীর বিভিন্ন বানভাসি এলাকায় রান্না করা খাবার বিতরন করে তারা। এসময় উপস্থিত ছিলেন তাহমিনা লাকি, বিপা, ফয়সাল, জাহিদ, প্রেমাসহ অন্যান্যরা।#







মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

গনমাধ্যম

স্বাস্থ্য

বিশেষ সংবাদ

কৃষি ও খাদ্য

আইন ও অপরাধ

ঘোষনাঃ