ফরিদপুরে নতুন আক্রান্ত ৬ জনের ৪ জনই সদর উপজেলার





প্রতিবেদক, টাইমসবাংলা.নেটঃ
ফরিদপুর করোনাভাইরাস শনাক্তের সংখ্যা শতের ঘর অতিক্রম করলো। গত ২৪ ঘন্টায় আরও ছয়জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে ফরিদপুর জেলায় করোনাভাইরাস শনাক্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ১০৩ জন।

বৃহস্পতিবার দুপুরে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজের করোনা ল্যাব থেকে এ তথ্য জানা গেল।

ফরিদপুরে নতুন করে যে ছয়জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হলো তাদের সকলেই পুরুষ। এদের মধ্যে চারজন ফরিদপুর শহরসহ সদর উপজেলার। এবং বাকি দুইজনের বাড়ি বোয়ালমারী উপজেলায়। আক্রান্তের মধ্যে ২০ থেকে ৩০ বছরের বয়সী রয়েছে চারজন। বাকি দুই জনের মধ্যে একজনের বয়স ৪৪ অন্যজনের ৫৫।

সদরের চার জনের মধ্যে একজনের বাড়ি চরকমলাপুর, একজন বিলমাহমুদপুর, একজন দয়ারামপুর এবং অপর জনের বাড়ি ঈশানগোপালপুর।

নতুন করে আক্রান্তের মধ্যে একজনের বাড়ি বোয়ালমারী উপজেলার চতুল ইউনিয়নে। তাঁর বাবা একজন মুক্তিযোদ্ধা ছিলেন, তিনি গত সোমবার করোনাভাইরাসজনিত কভিট-১৯ রোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন।

ফরিদপুরের করোনা শনাক্তকরণ ল্যাব সূত্রে জানা গেছে গত বুধবার ফরিদপুর ও গোপালগঞ্জের মোট ১৮৮ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এর মধ্যে ফরিদপুরের ৮০ এবং গোপালগঞ্জের ১০৮টি। মোট পজিটিভ শনাক্ত হয়েছে ১৮ জন। এর মধ্যে ফরিদপুরে ছয়জন এবং গোপালগঞ্জে ১২জন।

ফরিদপুরে মোট শনাক্ত ১০৩ জনের মধ্যে বোয়ালমারীতে ২৮ জন, নগরকান্দায় ১৯জন, ফরিদপুর সদরে ২৩জন, আলফাডাঙ্গায় ১৭, ভাঙ্গায় ৬, সদরপুরে ৪, চরভদ্রাসনে ৩, মধুখালীতে ২ এবং সালথায় ১ জন।

ফরিদপুরের পুলিশ সুপার মো. আলিমুজ্জামান বলেন, ফরিদপুর শহরসহ বিভিন্ন উপজেলায় গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে যে ৬ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে তাদের প্রত্যেকের বাড়ি বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে। আক্রান্ত সকলের শারীরিক অবস্থা যাচাই করা হচ্ছে। শনাক্তদের বাড়িতে রেখে চিকিৎসা দেয়া হবে, কারো শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটলে ফরিদপুরের করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে স্থনান্তর করা হবে। #







মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

গনমাধ্যম

স্বাস্থ্য

বিশেষ সংবাদ

কৃষি ও খাদ্য

আইন ও অপরাধ

ঘোষনাঃ