ফরিদপুরে আরো ৮ জনের করোনা শনাক্ত





ফরিদপুর প্রতিনিধি, ১৯ মেঃ
ফরিদপুরে দুই বোন ও ভাগনিসহ আরও আটজনের করোনাভাইরাস শনাক্ত। মঙ্গলবার সকালে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজের করোনা ল্যাব থেকে এ তথ্য জানা যায়। এ নিয়ে ফরিদপুরে করোনা ভাইরাস আক্রান্ত এর সংখ্যা দাঁড়ালো ৬১ জন।

ফরিদপুরে নতুন করে যে আটজনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে তাদের মধ্যে সাতজন নগরকান্দা এবং একজন সালথা উপজেলার বাসিন্দা। নগরকান্দার সাতজনের মধ্যে দুইজন জন চাকুরি সুত্রে নগরকান্দা রয়েছেন। আক্রান্ত আটজনের মধ্যে পাঁচজন নারী এবং তিনজন পুরুষ।

দুই বোন (৩৮) ও (২০) এবং ভাগনী (১৪) আক্রান্ত হয়েছেন। এরা নগরকান্দা উপজেলার ফুলসূতি ইউনিয়নের একটি গ্রামের বাসিন্দা। সম্প্রতি এক বোনের (২০) বাচ্চা হয় ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। এসময় ওই পরিবারের সদস্যরা হাসপাতালে থাকাসহ কয়েক দফা আসা যাওয়া করেন। এ কারনে তাদের করোনা শনাক্ত হতে পারে এ কৌতুহল থেকে গত সোমবার ওই পরিবারের সদস্যরা নমুনা দিয়েছিল পরীক্ষার জন্য।

এছাড়া একই উপজেলার কাইচাইল ইউনিয়নের একটি গ্রামের এক ব্যাক্তির (৫০) করোনা শনাক্ত হয়েছে। তিনি কিছু দিন আগে ঢাকা গিয়েছিলেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমেপ্লক্সে কর্মরত দুই স্বাস্থ্য পরিদর্শিকা (৪৮) ও (৫০) এবং এক স্বাস্থ্য পরিদর্শিকার ছেলে ২৮ বছর বয়সী এক প্রকৌশলীর করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এরা তিনজনই টাঙ্গাইল জেলার ধনবাড়ী উপজেলার বাসিন্দা।

সালথা উপজেলায় আক্রান্ত হয়েছে (২৩) বছর বয়সী এক তরুণ। তার বাড়ি উপজেলার গট্টি ইউনিয়নে।

ফরিদপুর জেলায় এ পর্যন্ত মোট ৬১ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। নয়টি উপজেলার মধ্যে এতদিন সালথায় কোন করোনাভাইরাস পজিটিভ রুগী ছিল না। সালথায় করোনাভাইরাস শনাক্ত হওয়ায় ফরিদপুরের নয়টি উপজেলাতেই করোনাবাইরাস শনাক্ত হলো।

শনাক্ত ৬১ জনের মধ্যে বোয়ালমারীতে ২১ জন, নগরকান্দায় ১৩জন, ফরিদপুর সদরে ১০জন, সদরপুর ও আলফাডাঙ্গায় ৪ জন করে, চরভদ্রাসন ও ভাঙ্গায় ৩ জন করে, মধুখালীতে ২ এবং সালথায় ১ জন।

সনাক্ত হওয়া ৬১ জনের মধ্যে ১২জন ইতিমধ্যেই সুস্থ হয়ে গেছেন। এরা করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতাল এবং বাড়িতে থেকে চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হয়েছেন।

ফরিদপুরের করোনা শনাক্তকরণ ল্যাব সূত্রে জানা গেছে সোমবার ফরিদপুর ও গোপালগঞ্জের মোট ১৮৭ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এর মধ্যে ফরিদপুরের ১৪০ এবং গোপালগঞ্জের ৪৭ জন। মোট পজিটিভ হয়েছে ৩২ জনের। এর মধ্যে ফরিদপুরে একজন পুরনো রোগী এবং নতুন আটজন মিলিয়ে মোট নয় জনের করোনা শনাক্ত হয়। অপরদিকে গোপালগঞ্জে শনাক্ত হয়েছে ২৩জনের।

ফরিদপুরের পুলিশ সুপার মো. আলিমুজ্জামান বলেন, নগরকান্দার ফূলসুতী, কাইচাইল ইউনিয়ন এবং সালথা উপজেলার গট্টি ইউনিয়নের করোনা শনাক্ত হওয়া বাড়িগুলি বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে। পাশাপাশি শনাক্ত হওয়া ব্যাক্তিবর্গ কাদের সাথে মিশেছে তাদের শনাক্ত করে তাদের বিচ্ছিন্ন করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।#







মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

গনমাধ্যম

স্বাস্থ্য

বিশেষ সংবাদ

কৃষি ও খাদ্য

আইন ও অপরাধ

ঘোষনাঃ