তিন উপজেলাতেই নিক্সন চৌধুরীর জয়





প্রতিবেদক, টাইমসবাংলা.নেটঃ
পঞ্চম উপজেলা পরিষদের নির্বাচনের দ্বীতিয় ধাপে সোমবার ফরিদপুরের ৮টি উপজেলাতে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। বড় ধরনের কোন ঘটনা ছাড়াই ভোট গ্রহন সম্পন্ন হয়েছে।

৮টি উপজেলার মধ্যে ফরিদপুর ৪ আসনের সংসদ সদস্য মুজিবুর রহমানের নির্বাচনী এলাকার ৩ টি উপজেলা রয়েছে। উপজেলা গুলো হচ্ছে ভাঙ্গা, সদরপুর ও চরভদ্রাসন। এই তিনটি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনেই নিজের পছন্দের প্রার্থীকে সমর্থন দিয়েছিলেন তিনি। তিনটি উপজেলাতে তার সমর্থিত প্রার্থীরা আওয়ামীলীগ মনোনীত, কাজী জাফরউল্ল্যাহ সমর্থিত নৌকা প্রতীকের প্রার্থীকে পরাজিত করে জয়ী হয়েছে।

ভাঙ্গা উপজেলায় নিক্সন চৌধুরী সমর্থিত প্রার্থী এমএম হাবিবুর রহমান আনারস প্রতীক নিয়ে প্রায় ৪৪ হাজার ভোট পেয়ে বেসরকারীভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্ধি নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মো. জাকির হোসেন মিয়া পেয়েছেন ২৭ হাজার ভোট। বর্তমান চেয়ারম্যান ও এমপি নিক্সন চৌধুরীর এক সময়ের কাছের লোক বলে পরিচিত শাহাদাত হোসেন ঘোড়া প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ২২ হাজার ভোট।

সদরপুর উপজেলায় বর্তমান চেয়ারম্যান, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক কাজী শফিকুর রহমান নিক্সন চৌধুরীর সমর্থন নিয়ে আনারস প্রতীকে প্রতিদ্বন্ধিতা করে বেসরকারীভাবে বিজয়ী হয়েছেন। তিনি পেয়েছেন ৩৬ হাজার ৫৮ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্ধি আওয়ামীলীগ মনোনিত ও কাজী জাফরউল্ল্যাহ সমর্থিত শাহেদীদ গামাল লিপু নৌকা প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৩৪ হাজার ৬৩৩ ভোট।

এমপি নিক্সন চৌধুরীর নির্বাচনী এলাকার আরেকটি উপজেলা চরভদ্রাসন। এই উপজেলাতে বেসরকারী ভাবে নিক্সন চৌধুরীর সমর্থক মোশাররফ হোসেন ভিপি মোসা বেসরকারীভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তিনি টেলিফোন প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৯ হাজার ৬৯৮ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্ধী এমপি নিক্সন চৌধুরীর আরেক সমর্থক আনোয়ার আলী মোল্যা আনারস প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৬ হাজার ১৩৮ ভোট। নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মো. কাউসার হোসেন তৃতীয় হয়েছেন।

ভিডিও…..ফরিদপুরের ৮ উপজেলায় বিজয়ী যারা


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

গনমাধ্যম

স্বাস্থ্য

  • item-thumbnail

    মেথি চা’য়ের উপকারিতা

    Views 62370Likes Rating 12345 টাইমসবাংলা.নেটঃ শরীর সুস্থ রাখতে মেথি চায়ের জুড়ি নেই। সুগার নিয়ন্ত্রণে রাখতে মেথি চা খেতে পারেন। যারা ডায়াবেটিসে ভুগছেন ...

বিশেষ সংবাদ

কৃষি ও খাদ্য

আইন ও অপরাধ

ঘোষনাঃ