বাবার অবহেলা সইতে না পেরেই বাবাকে খুন করে শাহালম

অপরাধ প্রতিবেদক, টাইমসবাংলা.নেটঃ
আদালতে বাবাকে হত্যার কথা স্বিকার করে জবানবন্দি দিয়েছে ছেলে। বাবার নাম আক্কাছ শিকদার আর ছেলের নাম শাহাবুদ্দিন শিকদার ওরফে শাহালম। এদের বাড়ি ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলার ব্রাম্মনপাড়া গ্রামে। গত ১৯ জুন পারিবারিক বিরোধের জের ধরে চাকু দিয়ে কুপিয়ে বাবাকে হত্যা করে শাহালম। স্বিকারোক্তি মূলক জবানবন্দিতে আরো একটি নির্মমতা উঠে এসেছে পুলিশ কর্তাদের সামনে।




এই মামলার তদন্তকারী সংস্থা পুলিশ ব্যুারো অব ইনভেস্টিগেশন(পিবিআই) ফরিদপুর ইউনিট প্রধান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কানাই লাল সরকার জানান, শাহালম এর বাবা আক্কাছ শিকদারের ৪ টি বিয়ে। শাহালম ৩য় স্ত্রীর ছেলে। তার বাবা ৪র্থ স্ত্রী নিয়ে অন্যত্র বসবাস করতো। বাকী ৩ স্ত্রী ও তার সন্তানাদীর কোন খোজ খবর নিতো না। ভরনপোষন তো দূরে থাক ফোন দিলে ফোনও রিসিভ করতো না।

গত ঈদের সময় ছোট ভাই বোনকে কিছু দেয়া হয়নি জানতে পেরে বাবাকে ফোন দেয় শাহালম। যথারীতি বাবা ফোন রিসিভ না করলে সে তার পুলিয়া গাবতলী এলাকায় বাবার বাসায় গিয়ে বাসার পাশ থেকে আবার ফোন দেয়। বাবা ফোন না ধরলে সৎ মা বাবার কাছে জানতে চায় কার ফোন, ফোন ধরছে না কেন। তখন সে ছেলেকে গালিগালাজ করে।

গালিগালাজ শুনে বাবার সামনে গিয়ে এর প্রতিবাদ জানায় শাহালম। এসময় বাবা-সৎ মায়ের সাথে কথা কাটাকাটি ও ধস্তাধস্তির এক পর্যায়ে চাকু দিয়ে বাবাকে উপর্যূপরি আঘাত করে শাহালম। এতে ঘঁনাস্থলেই মৃত্যু হয় তার।

এই ঘটনায় ভাঙ্গা থানায় মামলা দায়ের হলে পিবিআই স্ব প্রনোদিত হয়ে মামলাটি তদন্তভার নেয়। তদন্ত ও আসামী ধরতে ব্যাপক অভিযানের ফলে আসামী শাহলম আদালতে আত্মসমর্পন করে।

পরে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই গোলাম কিবরিয়া এই মামলার এক মাত্র আসামী শাহলমের রিমান্ড আবেদন জানালে আদালত দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে।

পিবিআই কার্যালয়ের জিজ্ঞাসাবাদে শাহলম বাবাকে হত্যার কথা স্বিকার করে মর্মান্তিক এই সত্যকে সামনে নিয়ে আসে। এই কর্মকর্তা বলেন, বাবা মায়ের অতি আদর যেমন ছেলে মেয়ের বখে যাওয়ার কারন তেমনি বাবা মায়ের অবহেলা সন্তানকে হত্যাকারীও করে দিতে পারে।

এই কর্মকর্তা জানান, যেহেতু আসামী শাহালমের বয়ষ ১৬ বছর ৪ মাস। তাই তার বিচার কিশোর অপরাধ হিসেবে বিবেচিত হয়েই বিচার কার্য চলবে। #




মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

গনমাধ্যম

স্বাস্থ্য

বিশেষ সংবাদ

কৃষি ও খাদ্য

আইন ও অপরাধ

ঘোষনাঃ