সরকারী ত্রাণ প্রকৃত ক্ষতিগ্রস্থদের কাছে পৌছেনা-সম্পাদক শামা ওবায়েদ





ফরিদপুর প্রতিনিধি, ১৭ অগাষ্টঃ
বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক শামা ওবায়েদ ইসলাম বলেছেন, দেশের করোনার পর সাম্প্রতিক বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ অসংখ্য মানুষ অসহায় অবস্থায় জীবনযাপন করছে। সরকারী বরাদ্দকৃত ত্রাণ সামগ্রীও ক্ষতিগ্রস্থ অসহায় মানুষদের কাছ পর্যন্ত পৌছায় নাই। বিএনপি শুরু থেকেই এসব অসহায় মানুষের পাশে রয়েছে। বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নির্দেশে দলের নেতাকর্মীরা সবসময় সাধারণ জনগণের পাশে আছে। তারেক রহমানের নির্দেশে অসহায় মানুষদের ত্রাণ দেয়ার সময়ে ক্ষতিগ্রস্থরাই জানাচ্ছে, এপর্যন্ত কেউ তাদের খোজ নেয়নি, তাহলে প্রশ্ন সরকারী এত ত্রাণ গেল কই?

আজ সোমবার দুপুরে ফরিদপুরের চরভদ্রাসন উপজেলার এমপিডাঙ্গি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে বন্যাদুর্গতদের মাঝে ত্রাণ সহায়তা বিতরণকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে শামা ওবায়েদ একথা বলেন।

এসময় অন্যান্যের মধ্যে বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক খন্দকার মাসুকুর রহমান মাসুক ও সেলিমুজ্জামান সেলিম, জেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মোদাররেস আলী ঈসা, সিনিয়র যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ জুলফিকার হোসেন জুয়েল, ভাংগা উপজেলা বিএনপির সভাপতি ইকবাল হোসেন সেলিম, জেলা যুবদলের সাবেক সভাপতি আফজাল হোসেন খান পলাশ, বর্তমান সভাপতি রাজিব হোসেন, সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গির হোসেন, জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য অ্যাডভোকেট মাহবুবুর রহমান দুলাল বক্তব্য রাখেন।

দলীয় সূত্র জানায়, বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ও ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নির্দেশে রাজবাড়ি জেলার গোয়ালন্দ, ফরিদপুরের চরভদ্রাসন ও সদরপুর এবং মাদারিপুর জেলার শিবচর ও কালকিনি উপজেলায় বন্যাদুর্গত এলাকার পাঁচ হাজার পরিবারের মাঝে এসব খাদ্য সহায়তা প্রদান করা হয় আজ সোমবার। এর মধ্যে ফরিদপুরের চরভদ্রাসন ও ভাঙ্গায় ২ হাজার পরিবারকে ত্রাণ সহায়তা দেয়া হয়।

এসময় জেলা যুবদলের সিনিয়র সহ-সভাপতি কেএম জাফর, সাংগঠনিক সম্পাদক শহিদুর রহমান, ছাত্রদল নেতা জামিল সিদ্দিকী, মাইদুল ইসলাম স্মরণসহ জেলা ও উপজেলা বিএনপি ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।#







মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

গনমাধ্যম

স্বাস্থ্য

বিশেষ সংবাদ

কৃষি ও খাদ্য

আইন ও অপরাধ

ঘোষনাঃ