রাজবাড়ীতে ছাত্রী ধর্ষণ মামলায় শিক্ষকের যাবজ্জীবন





প্রতিবেদক, টাইমসবাংলা.নেটঃ
রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলার নারুয়া ইউনিয়নের মধুপুর গ্রামে পারিজাত বৃদ্ধাশ্রম ও এতিমখানার চতুর্থ শ্রেণীর এক ছাত্রীকে ধর্ষণের দায়ে ওই প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক রবিউল ইসলামকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদন্ড দিয়েছেন আদালত। বুধবার দুপুরে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল আদালতের বিচারক শারমীন নিগার এ রায় দেন।

দন্ডপ্রাপ্ত রবিউল রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলার নারুয়া ইউনিয়নের খালিয়া মধুপুর গ্রামের ওমর আলী শেখের ছেলে। সে ওই এলাকার পারিজাত এতিমখানা বৃদ্ধাশ্রম ও এতিমখানার শিক্ষক ছিলেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বর মাস থেকে ২০১৯ সালের জানুয়ারী পর্যন্ত পারিজাত এতিমখানা বৃদ্ধাশ্রম ও এতিমখানার চতুর্থ শ্রেণির এক ছাত্রীকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে শিক্ষক রবিউল। এছাড়া একই প্রতিষ্ঠানের আরও কয়েক ছাত্রীর সাথেও সে একই ঘটনা ঘটায় এবং যৌন নির্যাতনের দৃশ্য সে ভিডিও ধারণ করতো।

ঘটনা জানাজানি হওয়ার পর পারিজাত এতিমখানা বৃদ্ধাশ্রম ও এতিমখানার ভাইস চেয়ারম্যান ফারুক আহমেদ বাদী হয়ে রবিউল ইসলামের বিরুদ্ধে বালিয়াকান্দি থানায় একটি মামলা করেন। পরবর্তীতে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা আসামি রবিউলের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশীট দাখিল করেন। দীর্ঘ সাক্ষ্য প্রমাণ শেষে আদালতের বিচারক রবিউল ইসলামকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদন্ড, ২০ হাজার টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে আরও ছয় মাসের কারাদন্ড প্রদান করেন। রাষ্ট্রপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল আদালতের পিপি এ্যাডঃ উমা সেন।#







মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

গনমাধ্যম

স্বাস্থ্য

বিশেষ সংবাদ

কৃষি ও খাদ্য

আইন ও অপরাধ

ঘোষনাঃ