বোয়ালমারীতে আওয়ামীলীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী বিজয়ী, সহিংসতায় একটি কেন্দ্রের ভোট গ্রহণ স্থগিত





প্রতিবেদক, টাইমসবাংলা.নেটঃ

ফরিদপুরের বোয়ালমারী পৌর নির্বাচনে জয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী দৈনিক যুগান্তরের সাংবাদিক সেলিম রেজা লিপন। ১৬ জানুয়ারী শনিবার দিনব্যাপী ভোটগ্রহণ শেষে ফলাফল ঘোষণায় তিনি ৯ হাজার ২৩৯ ভোট পেয়েছেন। প্রতিন্দ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থীর চেয়ে তিনি এগিয়ে রয়েছেন ৫ হাজার ৩৫১ ভোটে। আলীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. লিটন মৃধা পেয়েছেন ৩ হাজার ৮৮৮ ভোট।

বিচ্ছিন্ন দুটি সংঘর্ষ ছাড়া শান্তিপূর্ণভাবে এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। একটি কেন্দ্রে সহিংসতার জন্য কেন্দ্রটির ভোট গ্রহণ স্থগিত করা হয়েছে। স্থগিতকৃত কেন্দ্রের ভোট সংখ্যা ২ হাজার ৭২২ ভোট। স্থগিত কেন্দ্রে পূন নির্বাচন অনুষ্টিত হলেও মেয়ের পদে ফলাফল পরিবর্তনের কোন সুযোগ নেই বিধায় এই পৌরসভায় নৌকা প্রতীকের প্রার্থী বিজয়ী বলা যায়। নির্বাচনের এই ফলাফল নিশ্চিত করেছেন, জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. হাবিবুর রহমান।

তিনি বলেন, ৮টি কেন্দ্র থেকে প্রাপ্ত ভোটে আওয়ামী লীগ প্রার্থী সেলিম রেজা লিপন পেয়েছেন ৯ হাজার ২৩৯ ভোট, স্বতন্ত্র প্রার্থী লিটন মৃধা পেয়েছেন ৩ হাজার ৮৮৮ ভোট ও বিএনপি প্রার্থী আব্দুর শুকুর শেখ পেয়েছেন ২ হাজার ৫৮৭ ভোট।

এর আগে সরেজমিনে বিভিন্ন কেন্দ্র ঘুরে দেখা যায়, পৌরসভার ৯ টির মধ্যে ৭ টি কেন্দ্রে সুষ্ঠুভাবে ব্যালট পেপারে ভোট গ্রহণ সম্পন্ন হলেও দুটি কেন্দ্রে অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেছে। বেলা সাড়ে বারোটার দিকে পৌরসভার ৯ নং ওয়ার্ডের মধ্যেরগাতী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে কাউন্সিলর প্রার্থীদের কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে ভোট গ্রহণ স্থগিত হয়ে যায়। এই ওয়ার্ডে একজন কাউন্সিলর প্রার্থীর পক্ষে জোর করে ভোট আদায়ের চেষ্টাকালে অপর কাউন্সিলর প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকেরা তাতে বাধা দিলে সংঘর্ষ শুরু হয়। সহিংসতার এক পর্যায়ে ওই কেন্দ্রের ৭ টির মধ্যে ৫ টি ব্যালট বাক্স ছিনিয়ে নেয় উত্তেজিতরা। পরে একটি ব্যালট বাক্স উদ্ধার করা সম্ভব হলেও বাকি চারটি ব্যালট বাক্সের ব্যালট পেপার আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেয় দুর্বৃত্তরা। ওই কেন্দ্রে কর্তব্যরত প্রিজাইডিং অফিসার উপজেলা পল্লী উন্নয়ন অফিসার সৌমেন্দ্রনাথ রায় ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এ ঘটনায় ৪ টি ব্যালট বাক্স খোয়া গেছে।

অপরদিকে ৬ নং ওয়ার্ডের ছোলনা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে একটার দিকে জাল ভোট দেয়াকে কেন্দ্র করে উত্তেজিত পরিস্থিতির সৃষ্টি হলে ওই কেন্দ্রে ঘন্টাখানেক ভোট গ্রহণ বন্ধ থাকে। এছাড়া অন্য কেন্দ্রগুলোতে শান্তিপূর্ণভাবে ভোট গ্রহণ সম্পন্ন হয়।

এ ব্যাপারে উপজেলা সহকারী রিটার্নিং অফিসার এ টি এম আজমল হোসেন বলেন, মধ্যেরগাতি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে সহিংসতার কারণে ভোট গ্রহণ স্থগিত করা হয়েছে। বাকি সব কেন্দ্রে শান্তিপূর্ণভাবে ভোট গ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে।

পৌরসভার ৯টি ভোটকেন্দ্রে ৯ জন নির্বাহী হাকিম, বিজিবির ৪ টি টিম ও র‌্যাব-পুলিশসহ বিপুল সংখ্যক আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা নিয়োজিত ছিল।

চতুর্থ বারের মতো বোয়ালমারী পৌরসভায় অনুষ্ঠিত এ নির্বাচনে মেয়র পদে ৩ জন, ৯টি ওয়ার্ডে সাধারন কাউন্সিলর পদে ৩৪ জন এবং সংরক্ষিত ৩টি ওয়ার্ডে নারী কাউন্সিলর পদে ১১ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।

এ পৌরসভায় মোট ভোটার সংখ্যা ছিল ২২,২৭৯। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১০,৮৮৩ এবং নারী ভোটার ১১,৩৭৬ জন।#







মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

গনমাধ্যম

স্বাস্থ্য

বিশেষ সংবাদ

কৃষি ও খাদ্য

আইন ও অপরাধ

ঘোষনাঃ